May 11, 2021, 11:30 am

সংবাদ শিরোনাম

নোয়াখালীর মানুষের স্বাস্থ্যভার জেলাবাসীর ওপর ছেড়ে দিলেন জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস

image_pdfimage_print

স্টাফ রিপোর্টার: মহামারি করোনা লাফিয়ে বাড়ছে নোয়াখালী জেলায়। ফলে আগামীর নোয়াখালীর জনস্বাস্থ্যের নিরাপত্তার সিদ্ধান্তের ভার জেলাবাসীর ওপর ছেড়ে দিলেন জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস।

শনিবার (৩০ মে) তিনি ব্যক্তিগত ফেসবুকে লিখেন, ‌জীবন ও জীবিকার তাগিদে আমাদের লকডাউন শিথিল করতে হচ্ছে। সীমিত আকারে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড শুরু করার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। তিনি আরো বলেন, বিগত সময়ে নোয়াখালীবাসীর ভবিষ্যৎ বিবেচনায় কিছু কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। আপামর জনগণ এ সিদ্ধান্তে সমর্থনও যুগিয়েছেন।

৩০ মে ২৪ ঘন্টার সর্বশেষ চিত্রানুযায়ী ভয়াবহতা বিবেচনা করে তিনি লিখেন, জীবন আগে। তাই নিজের সিদ্ধান্ত নিজেই নিন। স্বাস্থ্যবিধি মানুন। জনসমাগম এড়িয়ে চলুন। একটি মৃত্যু, পরিবারের সারাজীবনের কান্না।

তবে জীবনের তাগিদে জীবিকার অপরিহার্যতাও উড়িয়ে দেয়া যায় না। তাই জেলাবাসী স্বাস্থ্যবিধি মেনেই জীবিকার সংগ্রামে শামিল হওয়ার বিকল্প নেই বলেও জেলার সচেতন নাগরিকরা মনে করছেন।

জেলা প্রশাসক লিখেছেন, নোয়াখালীতে নতুন করে ৯৬ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছেন। এরমধ্যে সদর উপজেলায় ৪১, বেগমগঞ্জ ৩৪, সোনাইমুড়ি ৮, চাটখিল ৬ ও সেনবাগে ৭ জন। এ জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছে ৫৭৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। আর সুস্থ্য হয়েছেন ৪১ জন।

উপজেলা ভিত্তিক আক্রান্তের সংখ্যা সদর ১২১, সুবর্ণচর ১৭, হাতিয়া ৬, বেগমগঞ্জ ২৬০, সোনাইমুড়ি ৩৬, চাটখিল ৩৭, সেনবাগ ২৮ কোম্পানীগঞ্জ ৮ ও কবিরহাটে ৬২ জন। এ জেলায় আক্রান্তের হার ১৫.১১%। সুস্থতার হার ৭.১৫%। এ পরিস্থিতিতে আমাদের কি করা উচিত ! বলে দাঁড়ি টানেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Freelancer Zone