বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
পৌর আওয়ামীলীগের সভপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টুর সুস্থতার জন্য দোয়া ও মোনাজাত রাজধানীতে আ.লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না: প্রধানমন্ত্রী নোয়াখালীতে জেলা যুবলীগের উদ্যোগে শান্তি ও সম্প্রীতি র‌্যালি চৌমুহনীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি বিশিষ্টজনদের সুবর্ণচরে বিয়ের ২ মাসের মাথায় সন্তান জন্ম দিলেন নববধূ নোয়াখালীর বিভিন্ন ধর্মীয় নেতাদের নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা  নোয়াখালীতে আ.লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা চৌমুহনীতে পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন ঢাকা বিশ্বদিল্যালয়ের প্রতিনিধি দল নোয়াখালীতে পূজা মন্ডপ ভাঙচুর, জেলা যুবদলের সভাপতিকে আসামি করে ৯৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

একদিকে চীনের সমঝোতার প্রস্তাব অন্যদিকে কড়া হুঁশিয়ারি

আর সংঘাত সংঘর্ষ নয়। ভারত-চীন সীমান্তে সংঘাত বাদ দিয়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমাধান খোঁজার চেষ্টা করা হোক। বুধবার, লাদাখে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর অশান্তির পারদ কমানোর বার্তা দিল চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও জানান, ভারত-চীন সীমান্তে সংঘর্ষে দুই পক্ষেই রক্তক্ষরণ হয়েছে। যদিও, চীনের বাহিনীর কতজন হতাহত হয়েছেন, সে বিষয়ে কিছু জানায়নি চীন।

এর আগে মঙ্গলবার সংঘর্ষের সমস্ত দায় ভারতীয় বাহিনীর উপর চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে বেজিং। এদিন চীনা বিদেশমন্ত্রক দাবি করে, ভারতীয় বাহিনীই আইন লঙ্ঘন করে চীনে প্রবেশ করে আক্রমণ করে। সেই আক্রমণ প্রতিহত করতেই পাল্টা হামলা চালায় চীনা বাহিনী।

ঝাও এরপর ভারতকে সাবধান করে দিয়ে বলেন, আবারও সীমান্ত পেরিয়ে চীনের এলাকায় প্রবেশ করলে ও একতরফা আগ্রাসী পদক্ষেপ করা হলে সেক্ষেত্রে সীমান্ত পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে।

আমরা চাই না আবারও সংঘর্ষ হোক, বলেন ঝাও। আলোচনার মাধ্যমে সীমান্ত সমস্যা মেটানোর পক্ষে কথা বলেন চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

অবশ্য শুরু থেকে ঘটনার যাবতীয় দায় ভারতের উপরেই চাপিয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টায় চীন। মঙ্গলবার সংঘর্ষের পর চীন বিবৃতি দিয়ে জানায়, “ভারতীয় বাহিনী সীমান্ত পেরিয়ে চীনা বাহিনীর উপর অতর্কিতে হামলা চালিয়েছিল।” সেই হামলার পাল্টা উত্তর দিতেই চীন আক্রমণ করে, দাবি বেজিংয়ের। সেই সঙ্গে বেজিংয়ের সঙ্গে আলোচনায় না গিয়ে নয়াদিল্লি যেন কোনও নতুন পদক্ষেপ না করে, সে বিষয়েও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ও গত সপ্তাহ থেকে শান্তি রক্ষার পক্ষে কথা বলে আসছে। সোমবারের সংঘর্ষের পরেও শান্তির পক্ষে ভারত। তবে একই সঙ্গে বিদেশমন্ত্রক জানিয়ে দিয়েছে, চীনের বাহিনী কোনওভাবে ভারতে প্রবেশ করে দখলদারি বা আক্রমণের চেষ্টা করলে ছেড়ে কথা বলা হবে না। এ বিষয়ে বুধবার সেনাকে সম্পূর্ণ স্বাধীনতাও প্রদান করেছে কেন্দ্র। পরিস্থিতি এলে ভারতও চাইলে যোগ্য জবাব দিতে পারে বলে বুধবার জানিয়েও দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ভারত-চীন সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে মঙ্গলবার রাত ১০ টা নাগাদ ৪ ক্যাবিনেট মন্ত্রীকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। লাদাখে সীমান্তে চীনের সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে ভারতীয় সেনার মৃত্যুর পর বর্তমানে সীমান্তের উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন তাঁরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Shera Web