বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন

নির্বাচন অনিয়ম হয়েছে যদি বিএনপি প্রমাণ করতে পারে আমি শপথ নিবোনা: আব্দুল কাদের মির্জা

নাছির উদ্দিন, কোম্পানীগঞ্জ নোয়াখালী : কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হবে অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ এবং সব দলের অংশগ্রহণে একটি নির্বাচন, মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা।

বসুরহাট পৌরসভা রুপালি চত্তরে বসুর হাট বাজারের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায়এসব কথা বলেন আবদুল কাদের মির্জা।বসুরহাট পৌরসভার গত ১৬ ই জানুয়ারি যে নির্বাচন হয়েছে সেই নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ এবং সব দলের অংশগ্রহণে হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিএনপি যদি প্রমাণ করতে পারে নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে কোনো অনিয়ম হয়েছে আমি শপথ নেব না। আমি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলাম বিএনপির প্রতি।

কাদের মির্জা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ করার ঘোষণা করেন। আমরা চাই কোম্পানীগঞ্জ থেকে প্রতিষ্ঠিত হোক গণতন্ত্রের সঠিক মাপ কাঠি, জনসভায় তিনি আরো বলেন বসুরহাট পৌরসভার নির্বাচন কিভাবে হয়েছে সেটা সারা বাংলাদেশের মানুষ দেখেছে এবং বিভিন্ন দল ও দেখেছে, কিন্তু বিএনপি আগে কোনো অভিযোগ করেনি ভোটের দিনে অভিযোগ করেনি, গত ২ দিন পূর্বে আমি বিএনপি প্রার্থীর বাসায় গিয়ে মিষ্টিমুখ করে এসেছি তখন তিনি অভিযোগ করেনি, হঠাৎ করে গতকালকে তারা কোথা থেকে বলছে নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে আমি বিএনপির প্রার্থী কামাল উদ্দিন চৌধুরীর প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলাম যে, যদি ভোটে কোনো অনিয়ম হয়েছে প্রমাণ করতে পারেন তাহলে আমি শপথ নিব না।

গণতন্ত্র আজ হারিয়ে যাচ্ছে মানুষের প্রতি মানুষের মমত্ববোধ সহানুভূতি আজকে নেই, আজকে আমরা একটি গণতান্ত্রিক দেশে বসবাস করলেও সকল দলের অংশগ্রহণের ভোট হয়না। মানুষ ভোট থেকে ফিরে গেছে। মানুষ ভোট দিতে আসে না আমি পৌরসভার নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত এ কথাই বলতে বাধ্য হয়েছিলাম যে যদি কোনো অনিয়ম বা কারচুপি হয় আল্লাহ যেন আমার সেদিন মৃত্যু দিয়ে দেয়।

কাদের মির্জা বলেন মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে আজকে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে বিএনপি জামাতের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়।

আবার বিএনপি-জামাত ক্ষমতায় আসলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়। প্রতিহিংসার রাজনীতি থেকে আমাদেরকে বের হয়ে আসতে হবে।

কোম্পানীগঞ্জের প্রশাসনের উদ্বৃতি দিয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করলেও আজ পর্যন্ত তার ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

আমি স্পষ্ট ঘোষণা দিচ্ছি, মাদক মুক্ত করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা কে আমি একটি আধুনিক উপজেলায় রূপান্তরিত করব আমাদের উপজেলার চেয়ারম্যান এর সহযোগিতায়। কোম্পানীগঞ্জ অটো রিক্সা সিএনজি গাড়ির কারণে যানজট সৃষ্টি হয় সে ব্যাপারে তিনি বলেন, নির্ধারিত স্থানে লোক নামাতে হবে এবং নির্ধারিত জায়গায় লোক উঠাতে হবে। এবং অটো রিকশা চালকরা এখানে সেখানে কোন সিগারেট খেতে পারবে না।

কোন লোক বাজারে সিগারেট খেতে পারবে না, সিগারেট খেতে হলে আমি নির্ধারিত জায়গা করে দিব সেখানে খেতে হবে। তাহলে সিঙ্গাপুরের মতো আমি জায়গা নির্ধারণ করে দিব, নির্ধারিত জায়গায় তারা সিগারেট খাবে। মেয়র বলেন আমি অতীতে ভুল করেছি এবং ভুল শুধরে নিচ্ছি, তার অর্থ এই নয় যে আমি সারাজীবন অনিয়ম করে যাব এবং অনিয়মকে প্রশ্রয় দেবো এই নীতি থেকে আমাদেরকে বের হয়ে আসতে হবে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় যেসকল চেয়ারম্যান আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হবেন তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন আপনাদেরকে বলছি, এখনো সময় আছে ভাবনা চিন্তা করতে হবে।

আপনি যদি ভোট করেন জনগণের কাছে যান আপনার যদি কোন ভুল থাকে সে ভুলের জন্য ক্ষমা চান। জনগণ যদি আপনাকে ম্যান্ডেট দেয় তাহলে আপনি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হবেন, আমি স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই কোম্পানীগঞ্জে ভোটের অনিয়ম অনিয়মের ভোট আর এখানে হবে না।

অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জনগণকে বুঝাতে সক্ষম হয়েছি, আমাকে যেভাবে জনগণ ভোট দিয়েছে আমি চাই সেভাবে আমাদের দল থেকে যারা মনোনয়ন পাবে, তারা যেন আমার বসুরহাট পৌরসভার ভোট টা অনুসরন করে। পেশিশক্তি টাকার টাকার গরমের কথা ভুলে যান।

সমাবেশে তিনি কোম্পানীগঞ্জের বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশনের ইনচার্জকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনাকে আমি দায়িত্ব দিয়েছিলাম বসুরহাট পৌরসভার গ্যাস সাপ্লাই ঠিক করার জন্য এবং বসুরহাট পৌরসভার যে গ্যাসের প্রেসার সেটা বৃদ্ধি করার জন্য এই ব্যাপারে কতটুকু করেছেন? তখন অডিয়েন্স থেকে গ্যাসের যে কর্মকর্তা আছে কোম্পানীগঞ্জে তিনি উত্তর দিয়েছে তিনি অনেকটা কাজ করেছে এবং খুব সহসাই এটির সমাধান হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ে তিনি বিদ্যুৎ বিভাগের যে অনিয়ম সে অনিয়ম তুলে ধরেন এবং সেখানে (আর -ই) কে ডেকে বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটারের সমস্যা সেগুলোর সমাধান করার বিষয়ে অনুরোধ করেন এবং কোন অনিয়ম হলে তার জন্য তিনি কঠোর হস্তে ব্যবস্থা নেবেন বলেও হুশিয়ারি দেন।

এরপর তিনি সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের অনিয়মের কথা জানতে চাইলে রেজিস্ট্রি অফিসের পক্ষ থেকে দলিল লেখক সমিতির সভাপতি আবদুস সালাম বাবুল বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর দেন এবং তিনি মানুষের দলিল এবং নকল যাতে দ্রুত পায় সে বিষয়ে অবহিত করেন এবং তিনি বলেন মানুষ দ্রুত সময়ে মানুষের দলিল এবং নকল যাতে পায় সে ব্যবস্থা করবেন। যদি কোন অনিয়ম হয় তার ব্যপারে তিনি পদক্ষেপ নিবেন।

এরপর তিনি ভূমি অফিসের কর্মকর্তা এবং উপজেলা প্রশাসন কর্মকর্তার অফিসে উপজেলার ইঞ্জিনিয়ার কে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা অনিয়ম করেন আমরা জানি কিন্তু এতোটুকু অনিয়ম করবেন না, সবকিছু আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন দেখে এবং অনিয়মের একটা সীমা থাকা দরকার। গরিব মানুষ থেকে কোন কাজে জিম্মি করে টাকা নিবেন না। এরপর তিনি এক কর্মকর্তাকে উদ্দেশ্য করে বলেন ভূমিদস্যুদের দখলে যে সকল জায়গা জমি আছে সেগুলো থেকে উত্তোলন করতে হবে এবং ভূমিদস্যুর হাত থেকে চরাঞ্চলে হাজার হাজার একর জায়গা রক্ষা করতে হবে। কোনো অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না।

বক্তব্যের শেষপ্রান্তে তিনি বলেন কাগজে লিখ নাম কাগজ ছিঁড়ে যাবে পাথরে লিখ নাম পাথর ক্ষয়ে যাবে হৃদয়ে লেখ নাম সে নাম রয়ে যাবে। তিনি বলেন এক জনের নাম হৃদয়ে লিখতে হবে সে নাম বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার নামটা যদি আমরা হৃদয়ে না লিখি তাহলে আমরা অকৃতজ্ঞ জাতিতে পরিণত হব, কারণ তিনি বাঙালি জাতির জন্য সংগ্রাম করেছে এবং বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Shera Web