রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

নোয়াখালীতে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলির ঘটনায় আটক ২

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জেরে বসত ঘরে ঢুকে এক যুবককে প্রকাশ্যে গুলি করেছে সন্ত্রাসীরা। এসময় সন্ত্রাসীরা বসত বাড়ীতে ব্যাপক ভাংচুর চালায়।এতে আতংকে এক নারী ঘটনাস্থলে মারা গেছেন। এঘটনায় আহত হয়েছে আরো জন ৪ জন। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত ২ জনকে আটক করে।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড দেবকালা গ্রামের আবদুল মুন্সী বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।
গুলিবিদ্ধ মো.ওমর ফারুক (২৭), একই উপজেলার দেবকালা গ্রামের খুরশিদ আলমের ছেলে।অপর আহতরা হলো ফারুকের মা বিবি কুলসুম বেগম(৫৫), ভাই রিয়াজ(২২), ও হৃদয়(১৫)। ঘটনাস্থলে মারা যাওয়া নারী মজিবা খাতুন(৭২) ওই বাড়ীর শরীয়ত উল্যার স্ত্রী এবং গুলিবিদ্ধ ফারুকের জেঠী।ঘটনার আকস্কিতায় আরো অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ফারুকের চাচি ও আবদুল হকের স্ত্রী পুষ্প বেগম (৪০)।

অপরদিকে সকালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ২ জনকে আটক করে। আটককৃতরা হলো, গোপালপুর ইউনিয়নের মহিব উল্যা গ্রামের ছায়েদুল হকের ছেলে শামীম (২৩),একই গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে আরাফাত হোসেন(১৫)।

জানাযায়, গত বছর উপজেলার মহিব উল্যা গ্রামের জাফর উল্যার ছেলে সন্ত্রাসী কালা বাবু দেবকলা গ্রামের আবদুল মুন্সী বাড়ীর ফারুককে মারধর করে। এ ঘটনায় ফারুক বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে সন্ত্রাসী কালা বাবু বিভিন্ন সময় ওই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ফারুককে হুমকি ধামকি ও চাপ প্রয়োগ করে আসছে।মঙ্গলবার পাশ্ববর্তী ভূঁইয়ালী বাড়ীতে কুল পাড়ে আবদুল মুন্সী বাড়ীর একটি ছেলে।

ভূঁইয়ালী বাড়ীর লোকজন এ নিয়ে ঝগড়ার জের ধরে সন্ত্রাসী কালা বাবু কে খবর দেয়।পূর্ব শক্রতা এবং ভূঁইয়ালী বাড়ির পক্ষ নিয়ে ১০/১৫ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে মুন্সি বাড়ীর ফারুকের উপর হামলা চালিয়ে প্রথমে মারধর করে গুরুতর আহত করে।পরবর্তীতে তার ঘরে ঢুকে ব্যাপক ভাংচুর করে এবং ফারুককে বুকের বাম পাশে অস্ত্র ঠেকালে ফারুকের মা কুলসুম বেগম,ভাই রিয়াজ এবং হৃদয় সন্ত্রাসীদের হাতে পা ধরে গুলি না করার অনুরোধ করে কিন্তুু সন্ত্রাসী কালা বাবু তাদের বেদম প্রহার করে ফারুকের বুকে গুলি চালিয়ে চলে যায়।

এ সময় আতংকে হার্ট এ্যাটক গুলিবিদ্ধ ফারুকের জেঠী ও শরিয়ত উল্যার স্ত্রী মজিবা খাতুন ঘটনাস্থলে মারা যায়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ফারুক এবং তার মা আহত কুলসুম বেগমকে উদ্ধার করে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ফারুকের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানাগেছে।অপরদিকে অসুস্থ আবদুল হকের স্ত্রী পুষ্প বেগম কে বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় ২ জনকে আটক করা হয়েছে। ভিকটিমের পরিবার তাদের সনাক্ত করেছে।এ ব্যাপারে একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Shera Web