May 10, 2021, 10:38 pm

সংবাদ শিরোনাম

মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা, চাচা আটক

image_pdfimage_print

নোয়াখালী প্রতিনিধি:নোয়াখালী শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ আলী মনুকে (৩২), মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় পুলিশ তার চাচাকে আটক করেছে।
নিহত মনু নোয়াখালী সদর উপজেলার নোয়াখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের কাশিপুরের দত্তবাড়ী এলাকার মৃত আকবর আলীর ছেলে।

মঙ্গলবার ভোরে পুলিশ অভিযুক্ত চাচাকে সদর উপজেলার নোয়াখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের কাশিপুরের দত্তবাড়ী এলাকার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে। আটককৃত মো.ইকবাল হোসেন (৫০) একই এলাকার মৃত আবদুল আলীর ছেলে।

এর আগে, গত সোমবার রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার নোয়াখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের দত্তবাড়ী মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে রাত পৌনে ১১টার দিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।
পরিবারের অভিযোগ , নিহত মনুর পরিবারের সাথে তার চাচা ইকবালের জায়গা সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ ছিল। ওই জায়গা সম্পত্তির বিরোধকে কেন্দ্র করে চাচা ইকবালের (৫০), নেতৃত্বে তার সাঙ্গপাঙ্গরা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে।

স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, সোমবার রাতে দত্তবাড়ি এলাকা থেকে মনুকে আটক করে তার চাচা ইকবাল ও তার সহযোগিরা। তার পর দত্ত বাড়ির পাশে একটি দোকানে মনুকে আটকে রেখে বেধড়ক পিটিয়ে হত্যা করে। এ সময় মনুকে বাঁচাতে গিয়ে তাঁর ছোট ভাই আহম্মদ আলী (২৭) হামলার শিকার হন। তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে, স্থানীয় এলাকাবাসী মনুকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়।

নিহতের ভাই আহমেদ আলী অভিযোগ করে বলেন, তার চাচা ইকবাল হোসেন ও তার সহযোগি শাহাদাত হোসেন সহ কয়েকজন এশার নামাজের পর মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে লিটন দাসের লেপ তোশকের দোকানে নিয়ে যায়। এসময় তারা মনুকে আটকে রেখে লোহার রড় ও হেমার দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানের এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে মনুকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসি। চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর মনু মারা যায়।

নিহতের মা শাহিদা বেগম জানান, ইকবালদের সাথে আমাদের জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে আমার ছেলে মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে এনে পিটিয়ে হত্যা করেছে ইকবাল ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা।

সুধারাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহেদ উদ্দিন জানান, নিহতের মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চাচাকে পুলিশ ভোররাতে আটক করেছে। অভিযোগ পেলে দ্রুত আইনানুগ গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Freelancer Zone