শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৬:২৯ অপরাহ্ন

করোনাকালীন সময়ে অসহায় দিনমজুর হতদরিদ্র মানুয়ের পাশে মানবিক চেয়ারম্যান

সালাহ উদ্দিন সুমন:বিশ্বজুড়ে এখন এক আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। সারাবিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে এই কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস। বিগত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে এই মহামারী হানাদেয় বাংলাদেশে। ভাইরাসটি যাতে মহামারী আকার ধারণ করতে না পারে তার জন্য সরকার সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করে।লকডাউনে খেটে খাওয়া অসহায় দিনমজুর হতদরিদ্র মানুষ যাতে অনাহারে না থাকে তার জন্য সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক জনগণের পাশে থাকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি গণ। তাদের মধ্যে একজন নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদের মানবিক চেয়ারম্যান একে এম সামছুদ্দিন জেহান।

করোনাকালীন সময়ে যিনি প্রতিনিয়ত মাঠে ছিলেন জনগণের দোরগড়ায়। নিজের সর্বোচ্চ টুকু দিয়ে চেষ্টা করেছেন জনগণের পাশে থাকতে। সর্বদা ছুটে বেড়িয়েছন নিজ উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে। তাই তিনি আজ নোয়াখালী সদর উপজেলার মানুষের কাছে একজন মানবিক উপজেলা চেয়ারম্যান।

করোনাকালীন সময়ে সাধারণ মানুষেরর মাঝে সতেনতার লক্ষে নিয়েছেন নানান কর্মসূচী। নোয়াখালী ০৪ সদর -সূবর্ণচর আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরীর পরামর্শে ও সহযোগিতায় বিভিন্ন হাট বাজারে গ্রামে গঞ্জে সাধারণ মানুষের মাঝে ১ লক্ষ মাস্ক বিতরণ করেছেন। ঘনঘন সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত কল্পে সদর উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে দিয়েছেন বিশেষ নির্দেশনা। ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র গুলোতে সাধারণ মানুষের করোনাকালীন সেবা নিশ্চিত করতে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। করোনা লক্ষণ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে দিয়েছেন বিশেষ বার্তা।

পাশাপাশি তিনি করোনা কালিন লকডাউনে অসহায় হতদরিদ্র নিম্ন বিত্ত খেটে খাওয়া দিনমজুরসহ উপজেলার বীর মুক্তি যোদ্ধা পরিবার, নোয়াখালী বাস মিনিবাস চালক ও হেলপার, বনিক সমিতির আওতাধীন দোকান কর্মচারী,সেলুন মালিক কর্মচারী, শিল্পী কলা কৌশলী এবং মুছিসহ বিভিন্ন পেশার অসহায়দের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরন করেন ।

৪২ হাজার মানুষের মাঝে ৪১০ মেট্রিকটন চাল, ৪ হাজার ৬০০ মানুষের মাঝে ২২লক্ষ ২৮ হাজার নগদ অর্থ, ১৮৫০ কেজি দুধ,৪৬২ কেজি সুজি,৯২৫ কেজি চিনি,১৮৫০ প্যাকেট বিস্কুট বিতরণ করেন। এছাড়াও নিজের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অসহায় হতদরিদ্রদের মাঝে ১১লক্ষ টাকার খাদ্য সামগ্রী এবং দলীয় নেতা কর্মীদের মাঝে করোনকালীন সময়ে প্রায় ৮ লক্ষ টাকা নগদ অর্থ সহায়তা করেন। সেই সাথে নোয়াখালী ৪ আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরীর পক্ষ থেকে প্রদত্ত ১৩ লক্ষ টাকার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

এছাড়াও মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশনায় ধান কাটার জন্য কৃষকদের মাঝে নগদ অর্থ তুলে দেন। শীতের শুরুতে করোনার ২য় ঢেউয়ের আঘাত যাতে জনগণের মাঝে না আসে তাই ছিন্নমূল মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

বৈশ্বিক করোনা মহামারীতে সত্যিকারের জনগণের সেবক হয়ে জগণের পাশে ছিলেন মানবিক উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান। করোনা মোকাবেলায় জনগণের যোগ্য প্রতিনিধি হয়ে পালন করেছেন সরকারের প্রতিটি নির্দেশনা তার এই কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ সম্প্রতী তিনি অর্জন করেছেন শেরেবাংলা পদক। করোনা নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত জনগণের পাশেই থাকবেন সদর উপজেলার মানবিক চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Shera Web