সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন

পরীমণির মামলার প্রধান আসামি নাসিরসহ গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যবসায়ী নাসির মাহমুদসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৪ জুন) ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (ডিবি-উত্তর) হারুন অর রশীদ বলেন, আমরা গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে এখন পর্যন্ত পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছি। তাদের মধ্যে পরীমণি’র দায়ের করা মামলার অন্যতম আসামি নাসির রয়েছে। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ মদসহ বিভিন্ন মাদক উদ্ধার করা হয়েছে।

উত্তরা ১ নং সেক্টর থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি’র গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপকমিশনার ইফতেখারুল ইসলাম। তিনি বলেন, পরীমণি’র মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে এখন পর্যন্ত পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে। অভিযান চলমান। যাচাই বাছাই শেষে আরও বিশদ তথ্য দেওয়া হবে।এর আগে সোমবার (১৪ জুন) ছয় জনকে আসামি করে সাভার থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

এর আগে ভোরে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার ঘটনায় পরীমণি’র অভিযোগ লিখিত আকারে গ্রহণ করা হয়। সকালে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএমপি’র মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) আ স ম মাহতাব উদ্দিন।রবিবার রাতে সাংবাদিকদের কাছে এবং ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে পরীমণি ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করেছিলেন।

ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করে তিনি লেখেন, ‘বরাবর, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমি পরীমণি। এই দেশের একজন বাধ্যগত নাগরিক। আমার পেশা চলচ্চিত্র। আমি শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি। আমাকে রেপ এবং হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই।’

সাংবাদিকদের পরীমণি বলেন, বুধবার রাত পৌনে ১১টার দিকে তাঁর এক বন্ধু (অমি) বাসায় আসেন। বাসা থেকে তাঁকে উত্তরার বোট ক্লাবে (ঢাকা বোট ক্লাব) নিয়ে যাওয়া হয়। এই সময় তাঁর সংগে ছিলেন জিমি (ব্যক্তিগত রূপসজ্জাশিল্পী)। বোট ক্লাবে যাওয়ার পর সেখানে সাত-আট জনের একটা গ্রুপ ছিলো। তাদের মুরব্বি ছিলেন নাসির উদ্দিন (নাসির ইউ মাহমুদ)। তিনি বোর্ড ক্লাবের চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচয় দেন।

‘নাসির মাহমুদসহ (নাসির ইউ মাহমুদ, প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী) উপস্থিত সাত-আট জন আমাকে বিভিন্নভাবে হেনস্থা করতে থাকে। আমাকে আটকে ফেলে। জোর করে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে অজ্ঞান করার চেষ্টা করে। জিমিকে মারধর করা হয়। অশ্লীল নানান কথাবার্তা বলা হয়, মেরে ফেলারও হুমকি দেওয়া হয়।নাসির মাহমুদ (নাসির ইউ মাহমুদ) তাঁর সংগে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করেন বলেও অভিযোগ করেন পরীমণি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Shera Web