শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১০:০৮ পূর্বাহ্ন

কোম্পানীগঞ্জ চায়না বাহিনির হামলায় কাদের মির্জার ৮ অনুসারী গুলিবিদ্ধ

নাছির উদ্দিন, প্রতিবেদক, কোম্পানীগঞ্জ : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার আট অনুসারীর ওপর রাতের আঁধারে বসতঘরে প্রবেশ করে গুলিবর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার  রাত ১০ টার দিকে উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডস্থ খালেক মেম্বার ও হেলাল মেম্বারের বাড়িতে আ.লীগ নেতা আবদুল গনির বসতঘরে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ থানায় চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক সহ ৪৭ জনকে আসামীকরে মামলা করা হয়।

কাদের মির্জার অনুসারী আওয়ামী লীগের নেতা মো. আবদুল গনি জানান, কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সাইফুদ্দিন আনোয়ার আমাকে ফোন করে বলেন, আমাদের চর এলাহিতে বিবদমান বিষয় নিয়ে আমরা যাতে শান্ত থাকি। তিনি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক কেও এ ব্যাপারে বলেছেন, সে মোতাবেক আমি আমার দলীয় নেতাকর্মীদের যার যার বাড়িতে অবস্থান করার জন্য নির্দেশ দেই।

কিন্তু রাত ১০:৩০ মিনিটের সময় চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে তার চায়না বাহীনীর প্রধান ডাকাত শাহীনসহ আমার বাড়ীতে গুলি বর্ষন ও বোমা হামলা করে । তিনি আরো জানান, অপর দিকে আমার বাড়ীতে এ ঘটনার পর রাত ১১ টায় চর লেংটা গ্রামে মোহরম আলীর নেতৃত্বে স্থানীয় ব্যবসায়ী নুরনবীর দোকানে অগ্নিসংযোগ করে দোকানঘর পুড়িয়ে দেয় ।এতে তার দোকানে ব্যাপক ক্ষতি হয় ।

গুলি ও বোমা হামলার ঘটনায় আহতরা হলেন- খালেক মেম্বারের ছেলে বাহার (৩০), হেলাল মেম্বারের ছেলে রুবেল (২৫), সিরাজ মিয়ার ছেলে সবুজ (৩৫), জামাল উদ্দিনের ছেলে ইউসুফ (২৮), বেলাল হোসেনের ছেলে ফিরোজ (২৩), জামাল উদ্দিনের ছেলে ইলিয়াছ (২৮), নুর মিয়ার ছেলে হেলাল মেম্বার (৪০) ও জইদর মিয়ার ছেলে সাদ্দাম (৩০)। আহত গুলিবিদ্ধদেরকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আবদুল গনি আরো বলেন, কোম্পানীগঞ্জের চলমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের লক্ষে প্রশাসনের অভিযানে গত ২৫ জুন (শুক্রবার) অস্ত্রসহ র‌্যাবের হাতে আটক সন্ত্রাসী শামছুদ্দিনের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেয়ায় রাজ্জাক ও ডাকাত শাহীনের নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয়েছে।

অন্যদিকে এই ঘটনার বিষয়ে চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবদুর রাজ্জাক এর মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তার মোবাইলে সংযোগ পাওয়া যায়নি ।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুদ্দিন আনোয়ার জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৭জুন রবিবার সকাল ১০টা ৩০ মিনিটের সময় চরএলাহী ইউনিয়নের বাদামতলী বাজার নামক স্থানে মাসুদের দোকানের সামনে একই অভিযোগে চায়না বাহিনীর চিহ্নিত একদল সন্ত্রাসী আব্দুর রহিম নামের এক আ.লীগ কর্মিকে এলোপাথাড়ী পিটাইয়া পায়ে গুলি করে আহত করে মৃত ভাবিয়া চলে যায়। উক্ত বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় তার মা বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামীকরে মামলা দায়ের করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
© All rights reserved © 2017 nktelevision
Design & Developed BY Shera Web